পাতা

সাধারণ তথ্য

 

২০০৯ হতে ২০১৩ সময়ে গৃহীত অত্র দপ্তরের মাধ্যমে নিম্ন বর্ণিত কার্যাবলী সম্পাদিত হয়ঃ

 

       আদমশুমারিঃ- ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত দেশের পঞ্চম আদম শুমারি এবং ২০১০ সালে অনুষ্ঠিত খানার আয় ব্যয় নির্ধারণ জরিপে মাঠ পর্যায়ে তথ্য সংগ্রহে এবং বিশেস্নষণে অত্যমত্ম সাফল্য জনক ভাবে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে আদম শুমারির প্রাথমিক ফলাফল ৩ মাসের মধ্যে ও খানার আয়-ব্যয় নির্ধারণ জরিপের ফলাফল মাত্র ৫ মাসের মধ্যে প্রকাশ করা সম্ভব হয়েছে। দক্ষিন এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগর এলাকার দেশ সমূহের জন্য এটি একটি মাইল ফলক হিসাবে বিবেচিত হয়েছে। আদমশুমারি ২০১১ এর কমিউনিটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে।

 

       অর্থনৈতিক শুমারিঃ- বাংলাদেশের অর্থনীতির গতিশীলতা এবং কাঠামোগত পরিবর্তনের প্রকৃত চিত্র অনুধাবনের লক্ষ্যে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে সঠিক পরিকল্পনা প্রনয়ণ ও  নীতি নির্ধারনের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ/সংকলন/প্রদান/প্রকাশের নিমিত্তে দেশে অর্থনৈতিকশুমারি - ২০১৩ অকৃষিমূলক কর্মকান্ডে নিয়োজিত সকল প্রতিষ্ঠান ও খানার তালিকা করা হয়েছিল যা ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে অন লাইনে কেন্দ্রীয় সার্ভারে ধারন করা হয়েছে। রিপোর্ট প্রকাশের প্রস্ত্ততি চলছে।

 

       কৃষি পরিসংখ্যানঃ- কৃষি পরিসংখ্যান উইং কর্তৃক ৬ টি প্রধান ফসল আউশ, আমন,বোরো,আলু,পাট ও গম  এবং ১১৮ টি অপ্রধান ফসলের বছর ভিত্তিক জমির আয়তন,উৎপাদন ও ফলন হার প্রাক্কলন করা হয়ে থাকে। এ ছাড়া ভূমি ব্যবহার ও সেচ পরিসংখ্যান, মাসিক কৃষি মজুরীর হার,বন জরিপ,মাছ উৎপাদন জরিপ,গবাদি পশু ও হাঁস মুরগী জরিপ কার্যক্রম নিয়মিত ভাবে চলছে।

 

       ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অব বিবিএস প্রকল্পঃ- সদর দপ্তর কর্তৃক ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অব বিবিএস প্রকল্পের আওতায় তথ্য প্রযুক্তি ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে প্রতিটি উপজেলায় কম্পিউটার সরবরাহ করা হয়েছে্এবং প্রয়োজনীয় জনবলকে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে কম্পিউটারের উপর যথাযথ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

 

       লিটার‌্যসি অ্যাসেসমেন্ট সার্ভে – ২০১১:- দেশের ইতিহাসে দ্বিতীয় বারের মত এ জরীপটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশের শিক্ষার মান যাচাই এর জন্য ইউনেসকো কর্তৃক প্রদত্ত সংখ্যা ব্যবহার করে ৬৪ টি জেলা ও ৬ টি সিটি কর্পোরেশনে প্রতিটির  ১২০০ টি খানা থেকে Kish grid পদ্ধতি ব্যবহার করে নির্বাচিত এক জন উপযুক্ত (১১-৪৫ বছরের) ব্যক্তির কগনিজেন্স টেষ্ট গ্রহণ করা হয়েছে। রিপোর্ট প্রকাশিক হয়েছে।

 

       মনিটরিং দি সিচুয়েশন অব ভাইটাল স্ট্যাটিসটিক্র অব বাংলাদেশ (MSVSB) :- জন্ম, মৃত্যু, বিবাহ, তালাক,আগমন,বহির্গমন, জন্ম নিয়ন্ত্রন,প্রতিবন্ধী ইত্যাদি তথ্য নমুনা এলাকা হতে নিয়মিত ভাবে সংগ্রহ করা হয়।

 

         এতদভিন্ন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর আওতায় মাঠ পর্যায়ে গত ২০০৯ হতে ২০১৩ পর্যমত্ম নিম্ন লিখিত শুমারি/জরিপ পরিচালিত হয়েছে।

 

  . আদমশুমারি ও গৃহ গননা- ২০১১

  . কৃষি পরিসংখ্যান  বর্ষগ্রন্থ  - ২০০৯-২০১০-২০১১

  . কৃষি শুমারি - ২০০৮ এর ফলাফল প্রকাশ

  . অর্থনৈতিক শুমারী  - ২০১৩ সফল ভাবে অনুষ্ঠান

  . স্বাস্থ্য ও জনতত্ব জরিপ - ২০১২

  . ডিস্ট্রিক্ট প্রোফাইল-২০১১

  . Multiple Indicator Cluster Survey (MICS) এর প্রতিবেদন প্রকাশ

  . লিটার‌্যাসি অ্যসেসমেন্ট সার্ভে - ২০১১

  . ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প জরিপ  - ২০১১

  . খানার আয় - ব্যয় নির্ধারন জরিপ - ২০১০

  . টাইম ইউজ পাইলট সার্ভে - ২০১২

  . উৎপাদন খরচ (কষ্ট অব প্রোডাকশন) জরিপ (পেপে,বেগুন,তরমুজ,টমেটো)

  . International Comparison Program (ICP) Survey – 2011

  . মা ও শিশুর পুষ্টিমান জরিপ - ২০১২

  . বার্ষিক শ্রম শক্তি জরিপ - ২০১০, শ্রমশক্তি ও শিশুশ্রম জরিপ

  . ব্যবসা সেবা প্রতিষ্ঠান জরিপ - ২০১২

  . মাসিক ভিত্তিতে ৫টি দর ছকের মাধ্যমে মূল্য ও মজুরী সংক্রামত্ম তথ্য নিয়মিত ভাবে চলছে

  . ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের উপর শুমারি

 

 

         এ ছাড়া ও নিয়মিত বিভিন্ন জরিপ কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। বস্তিশুমারি - ২০১৪ এর প্রস্ত্ততি চলছে।

 

         বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো যুগোপযোগী পরিসংখ্যান  সরবরাহে সচেষ্ট রয়েছে এবং অতীতের তুলনায় বিবিএস এর কার্যক্রম অনেক গতিশীল ও উন্নত হয়েছে।


Share with :

Facebook Twitter